ঠিক সেই সময়ে যখন বিশ্বজুড়ে মানুষ মহামারীর উদ্বেগ থেকে কিছুটা স্বাভাবিক জীবনে ফিরতে শুরু করেছিল, ঠিক তখনই দক্ষিণ আফ্রিকা থেকে একটি নতুন SARS-CoV-2 ভাইরাসের খবর প্রকাশিত হয়েছে। 

২৬ নভেম্বর, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও) ভাইরাসের এই নতুন স্ট্রেইন আখ্যায়িত করে এর নাম দিয়েছে ওমিক্রন। ওমিক্রন এখন অন্যান্য সাতটি ভ্যারিয়েন্টের সাথে যুক্ত হয়েছে, যার মধ্যে আগে ছিল আলফা, বিটা, গামা এবং ডেল্টা ভ্যারিয়েন্ট।

খবরে প্রকাশিত হয়েছে সর্বশেষ ‌এই ভ্যারিয়েন্টটির অসংখ্য মিউটেশন আছে যার ফলে এটি সহজেই সংক্রমণযোগ্য এবং এটি রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতাকে সহজে ভেদ করতে পারে। এসব কারনেই বর্তমানে ভ্যারিয়েন্টটি বিশ্বজুড়ে উদ্বেগ সৃষ্টি করেছে। দৈনন্দিন জীবনে এর কেমন প্রভাব পড়বে তা জানার জন্য মানুষ দিন দিন আগ্রহী হয়ে উঠছে।

এর আগে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও) এর তথ্য মতে ভেরিয়েন্টগুলিকে ‘ভ্যারিয়েন্ট অব কনসার্ন ‘ বা উদ্বেগজনক ভ্যারিয়েন্ট হিসাবে শনাক্ত করা হয়েছিল এবং মিডিয়া আকর্ষণের মূলে আসার আগে ভ্যারিয়েন্টগুলো নিয়ে যথেষ্ট গবেষণা করারও সময় পাওয়া গিয়েছিলো। তবে এবার ওমিক্রন এর বিষয়টি দুই সপ্তাহেরও কম সময়ে ঘটেছে।

omicron

কেন ওমিক্রন একটি “উদ্বেগজনক ভ্যারিয়েন্ট”?

ওমিক্রন এর স্পাইক প্রোটিনে ৩২ টি মিউটেশন পাওয়া গেছে। যদিও এর মধ্যে কিছু অন্য ভ্যারিয়েন্টের সাথে মিশ্রণ ঘটিয়েছে, তবে বেশিরভাগই নতুন ধরনের মিউটেশন। 

ওয়েন্ডি বার্কলে যিনি বর্তমানে যুক্তরাজ্যে করোনাভাইরাস ভেরিয়েন্ট নিয়ে গবেষণার প্রতিনিধিত্ব করছেন, উদ্বেগ প্রকাশ করে বলেছেন, ওমিক্রন ভ্যারিয়েন্ট এর স্পাইক প্রোটিনের পরিবর্তন হয় ফলে নতুন মিউটেশন ঘটে এবং এন্টিবডিকে দুর্বল করে দেয়। তিনি সতর্ক করেছেন যে, বিজ্ঞানীদের যে কোন সিদ্ধান্তে আসার আগে অনেক গবেষণা করতে হবে।

নতুন ভ্যারিয়েন্টের বিরুদ্ধে ভ্যাকসিন কী কাজ করবে?

উহান থেকে SARS-CoVID-2-এর প্রথম খবর পাওয়ার পর থেকে, গত দুই বছরে একাধিক ভ্যারিয়েন্ট আবিষ্কৃত হয়েছে এবং আমরা আশা করতে পারি নতুন ভ্যারিয়েন্ট এর আগমন ঘটতেই থাকবে।

ভ্যাকসিন দ্রুত তৈরি করা হয়েছে এবং অন্যান্য প্রতিষেধকও আসছে। নতুন ধরনের ভেরিয়েন্টের বিরুদ্ধে ভ্যাকসিনের কার্যকারিতা যদিও কম, তবে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে বুস্টার ডোজও সংযুক্ত করা হয়েছে। নতুন ভেরিয়েন্টের এর বিস্তারিত প্রতিক্রিয়াগুলি খুঁটিয়ে দেখার জন্য যথেষ্ট সময়ও হাতে নেই।

এই মুহূর্তে, এমন অনেক প্রশ্ন আছে যার উত্তর আমাদের হাতে নেই। বর্তমানে বিভিন্ন গবেষণা প্রক্রিয়া চলছে যা অনেকগুলি প্রশ্নের উত্তর দিতে সক্ষম হবে। গুরুত্বপূর্ণ কিছু প্রশ্নের উত্তরে যা পাওয়া যাবে:

  • বর্তমান ভ্যাকসিন দ্বারা প্রদত্ত সুরক্ষা স্তর
  • এই ভাইরাসে আক্রান্ত রোগীদের রোগের মাত্রা
  • ওমিক্রনের সংক্রমণযোগ্যতা

ইতিমধ্যে, ফাইজার এবং মর্ডানা সহ প্রধান কোভিড ভ্যাকসিন নির্মাতা সংস্থাগুলো ‘শুধু মাত্র ওমিক্রন’ এর ভ্যাকসিন তৈরিতে কাজ করছে যা প্রায় ৩ মাসের মধ্যে সবার কাছে পৌঁছে যাবে বলে আশা করা যায়। সাম্প্রতিক একটি সাক্ষাৎকারে, ফাইজারের প্রধান বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা মিকাইল ডলস্টেন বলছেন, ২০২২ এর মার্চের মধ্যে একটি ওমিক্রন কেন্দ্রিক বুস্টার পাওয়া যেতে পারে। সম্ভবত এবার এফডিএ ভ্যাকসিনগুলির ব্যাপকহারে ক্লিনিকাল ট্রায়াল এর ক্ষেত্রে ছাড় দিবে।

নিজেকে নিরাপদ রাখতে কী করতে পারি?

CDC বুস্টারগুলির নেওয়ার ব্যাপারে জোর দিয়েছে। সংস্থ্যাটি বলেছে যে কোন প্রাপ্তবয়স্কর ক্ষেত্রে মর্ডানা বা ফাইজার/বাওন্টেক-এর ভ্যাকসিনের প্রাথমিক দুই ডোজ শেষ করার ছয় মাস পরে অথবা জনসন অ্যান্ড জনসন-এর একক-ডোজ ভ্যাকসিন নেয়ার দুই মাস পর বুস্টার শট নেওয়া উচিত।

এখন পর্যন্ত, আমরা জানি যে মাস্ক পরা, হাত ধোয়া এবং শারীরিক দূরত্বের মতো সতর্কতাগুলি মেনে চলতে পারলে, ভাইরাসের কারণ হতে পারে এমন কোনও মিউটেশন ঘটার সম্ভাবনা নেই। এই নির্দেশিকাগুলি মেনে চলতে পারলে ওমিক্রন ভ্যারিয়্যান্ট থেকেও রক্ষা পাওয়া যেতে পারে।

আমার কী ওমিক্রন নিয়ে উদ্বিগ্ন হওয়া উচিত?

যদিও ওমিক্রনের প্রভাব আমাদের মহামারী থেকে স্বাভাবিক জীবনে ফিরে আসার লড়াইয়ে একটি বাধা হয়ে দাড়িয়েছে তবুও জনস্বাস্থ্য কর্মকর্তারা বিশ্বাস করেন যে, ভাইরাসটি টিকা এবং আগের সংক্রমণের ইমুনাইজেশান থেকে পুরোপুরি অব্যাহতি দেয়ার সম্ভাবনা কম।

টিকা দেওয়ার হার বৃদ্ধি এবং প্রতিশ্রুতিশীল ওষুধের কারণে, ওমিক্রন এর প্রভাব আলফা এবং ডেল্টার তুলনায় অনেক কম কষ্টকর হওয়া উচিত। বুস্টার শটগুলি উন্নত স্তরের অ্যান্টিবডি তৈরির দিকে নিয়ে যাবে যা ভাইরাসকে দূর্বল করে দেবে, এবং আরও বিভিন্ন ধরণের অ্যান্টিবডি তৈরি করবে যা নতুন ভ্যারিয়েন্টগুলির বিরুদ্ধে সুরক্ষা দেবে।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বিডেন সম্প্রতি এক সংবাদ বিবৃতিতে বলেছেন ওমিক্রন “চিন্তার কারণ তবে আতঙ্কের কারণ নয়।”  তিনি আরো বলেন “এই নতুন ভেরিয়েন্ট, এর বাইরের যে কোনও ভ্যরিয়েন্ট, বর্তমান যে কোন ভ্যরিয়েন্টের বিরুদ্ধে সবচেয়ে বেশি সুরক্ষা আমরা পেতে পারি সম্পূর্ণরূপে টিকা দেওয়া এবং বুস্টার শট নিশ্চিত করার মাধ্যমে।”

সাউথ আফ্রিকার ভিডিও সহ আভ্যন্তরীণ রিপোর্ট

Recommended Posts

No comment yet, add your voice below!


Add a Comment